অবশেষে প্রতীক্ষার সমাপ্তি ঘটলো। দেশে এসে পৌঁছেছেন সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান। নির্ধারিত সময়েই ঢাকায় পা রেখেছেন দু’জন। এখন তারা চলে যাবেন সরকার নির্ধারিত বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে।

করোনার থাবায় মাঝপথেই স্থগিত হয়ে পড়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ১৪তম আসর। অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে পড়ায় বিদেশি ক্রিকেটাররা বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন। নিজ দেশে ফেরার অপেক্ষায় ছিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে আইপিএল খেলতে যাওয়া সাকিব আল হাসান ও রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলতে যাওয়া মোস্তাফিজুর রহমান।

ঢাকায় পা রেখেই তাদেরকে এখন চলে যেতে হচ্ছে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে। রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা মানের হোটেলে সাকিব ও মোস্তাফিজের কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট। হোটেল শেরাটনে উঠবেন মুস্তাফিজুর রহমান এবং স্ত্রী নিয়ে হোটেল সোনারগাঁওয়ে থাকবেন সাকিব আল হাসান। এই কোয়ারেন্টাইন শেষ করে জাতীয় দলের সাথে যোগ দেবেন দু’জনই।

কেননা সামনেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। সেই সিরিজ শুরুর আগেই সাকিব-মোস্তাফিজকে মরিয়া বিসিবি। এর জন্য অবশ্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে চিঠি পাঠিয়েছিল বিসিবি, যেন কোয়ারেন্টাইন রীতি শিথিল করে দেওয়া হয়। তবে শেষ পর্যন্ত সেটি মেনে নেয়নি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ভারতের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির কারণে ১৪ দিনই কোয়ারেন্টাইনেই থাকতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে তারা। যার কারণেই তড়িঘড়ি করে বিসিবি দেশে আনতে চেয়েছে সাকিব-মোস্তাফিজকে।