তিন ইংলিশ পেসারে বিধ্বস্ত অজিরা!

103

ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের ২য় ম্যাচে গতকাল ম্যানচেস্টারে ২৪ রানের জয় তুলে নিয়ে সিরিজে ১-১ সমতা এনেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। বল হাতে ৩টি করে উইকেট শিকার করে অজিদের গুড়িয়ে দিয়েছেন ক্রিস ওকস, জোফরা আর্চার ও শ্যাম কারেন। ওয়ার্নার, রোট ও মার্শের উইকেট শিকার করে ম্যাচসেরা হয়েছেন জোফরা আর্চার।

ম্যানচেস্টারে টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড। শুরুতেই ওপেনার বেয়ারিস্টো স্ট্রার্কের শিকারে পরিণত হয়ে ৭ বলে শুণ্যে ফিরলেও অপর ওপেনার রয় দারুণ শুরু করেন, তবে রান আউট হয়ে রয় ফেরেন ২২ বলে ২১ রানের ইনিংস খেলেন। মাত্র ২৯ রানে দুই ওপেনার বিদায় নেওয়ার পর জো রুট ও অধিনায়ক মরগ্যান ৩য় উইকেটে লড়াই করে বিপর্যয় কাটিয়ে উঠলেও ৭৩ বলে ১ ছয় ও ৩ চারে ৩৯ রান করে রোট আউটের পর আবারো চাপে অজি ইংল্যান্ড। একে একে বাটলার ৩, মরগ্যান ৫টি চারে ৪২, বিলিংস ৮, শ্যাম কারেণ ১ ও ক্রিস ওকস ২৬ রানে ফিরে গেলে ২ উইকেটে ৯০ রান থেকে ১৪৯ রানে ৮ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। ৯ম উইকেটে লড়াই করেন টম কারেণ ও আদিল রশিদ। দুজনে দলকে সম্মানজনক সংগ্রহ এনে দেন। টম কারেণ ৩৯ বলে ৫টি চারে ৩৭ রান করে আউট হলেও মাত্র ২৬ বলে ১ ছয় ও ৩ চারে ৩৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন আদিল রশিদ। আর্চার ২ বলে ৬ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৯ উইকেট হারিয়ে ২৩১ রানের লড়াকু সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন জাম্পা। স্ট্রার্ক ২ উইকেট শিকার করেন। হ্যাজেডউড, কামিন্স ও মার্শ ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

২৩২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই আর্চারের বোলিং তোপে পরে ওপেনার ওয়ার্নার ও স্টইনিসের উইকেট হারায় অজিরা। ৩৭ রানে ২ উইকেট পতনের পর ওপেনার ফিঞ্চ ও লাবুশেন লড়াই করে দলকে জয়ের পথেই রাখেন। দুজনে ১০৭ রানের জুটি গড়েন। দলীয় ১৪৪ রানের মাথায় ৫৯ বলে ৩ চারে ব্যক্তিগত ৪৮ রানে লাবুশেন আউটের পর ধস নামে অজি ইনিংসে। একে একে ফিঞ্চ ১০৫ বলে ১ ছয় ও ৮ চারে ৭৩, মার্শ ১, ম্যাক্সওয়েল ১ রান করে ফিরে গেলে ১৪৪ রানে ২ উইকেট থেকে ১৪৭ রানের মধ্যেই ৬ উইকেট হারায় অজিরা। শেষের দিকে আলেক্স ক্যারি লড়াই করলেও কামিন্স ১১, স্ট্রার্ক শুণ্য ও জাম্পা ২ রানে ফেরার পর শেষে ক্যারি ৪১ বলে ২ চারে ৩৬ রান করে ফিরলে ৪৮.৪ ওভারে ২০৭ রানে থামে অজিদের ইনিংস। ২৪ রানের জয় তুলে নিয়ে সিরিজে সমতা আনে ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের হয়ে দূর্দান্ত বোলিং করেন তিন পেসার জোফরা আর্চার, ক্রিস ওকস ও শ্যাম কারেণ। ওকস ১০ ওভারে ৩২ রান দিয়ে ৩, আর্চার ১০ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে ৩ ও কারেণ ৯ ওভারে ৩৫ রান দিয়ে ৩ এবং আদিল রশিদ ৯.৪ ওভারে ৬৭ রান দিয়ে ১ উইকেট শিকার করেন। ম্যাচসেরা হয়েছেন অজিদের টপ অর্ডার গুড়িয়ে দেওয়া জোফরা আর্চার।

ঘরের মাঠে দূর্দান্ত ক্রিকেট খেলা ইংলিশরা সিরিজের প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের পর গতকাল জয়ের কোন বিকল্প ছিলো না স্বাগতিকদের সামনে। স্পিন অলরাউন্ডার মঈন আলীকে বসিয়ে সুযোগ করে দিয়েছিলেন পেস অলরাউন্ডার শ্যাম কারেণকে। আর এতেই বাজিমাত। বল হাতে ৩ উইকেট শিকার করে দলের জয়ে অবদান রাখলেন শ্যাম কারেণ। বড় ভাই টম কারেণও বিপর্যয়ের সময়ে ৩৭ রানের ইনিংস খেলে কার্যকরী ভ‚মিকা রেখেছেন।
আগামী ১৬ই অক্টোবর একই ভেন্যুতে সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ মাঠে গড়াবে। সে ম্যাচে জয়ী দলই সিরিজ জয়ের আনন্দে মেতে উঠবে।