দূর্দান্ত প্রতিভার অধিকারী ছিলেন শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ

237

বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে প্রতিভাবান কিন্তু হতাশা দিয়ে যাদের ক্যারিয়ার শেষ হয়েছে তাদের মধ্যে শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ অন্যতম। ২০০০ সালের আগে থেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের আলোচিত নাম শাহরিয়ার হোসেন বিদ্যুৎ।

ভারতের সাথে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টেই ডানহাতি ওপেনার হিসেবে বিদ্যুৎ এর অভিষেক। ম্যাচে মেহেরান হোসেনকে নিয়ে ওপেনিং করতে নেমে ৫০ বলে ১২ রান করে আউট হন তিনি। দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ৩২ বলে ৭ রান। দুই ইনিংসে ১৯ রান করেই আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটে পথচলা শুরু হয়।

তারপর জাতীয় দলের হয়ে জিম্বাবুয়ের সাথে ২০০৪ সালে ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট পর্যন্ত মাত্র ৩টি ম্যাচ খেলে ৪৮ রান বেস্টে ৯৯ রান করেন।

২০০০ সালে অভিষেক টেস্ট খেললেও তার দীর্ঘদিন পর তথা ২০০৪ সালে জিম্বাবুয়ের সাথে ২টি টেস্ট খেলেন। এই দুই টেস্টের একটিতে ৪৮ রানের ইনিংস ও আরেকটিতে ৩১ রানের ইনিংস খেলার পরও আর জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ হয়নি তার।

টেস্টের আগেই ১৯৯৭ সালে কেনিয়ার সাথে ওয়ানডে অভিষেক। কেনিয়ার দুই ওপেনারের সেঞ্চুরীতে বাংলাদেশকে ৩৪৮ রানের পাহাড়সম টার্গেট দিলে জবাবে বাংলাদেশ মাত্র ১৯১ রানে অলআউট হয়। সর্বোচ্চ ৬১ রান করেন আতাহার আলী খান। অভিষিক্ত বিদ্যুৎ করেন মাত্র ১৪ রান।

তারপর জাতীয় দলের হয়ে ২০০৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট খেলার আগ পর্যন্ত মাত্র ২০টি ওয়ানডে খেলে কেনিয়ার সাথে ৯৫ রান বেস্টে ২ ফিফটিতে ৩৬২ রান করেন তিনি।

২০০০ সালের পর থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেননি। ২০০৪ সালে ফিরে দুটি টেস্ট এ মোটামুটি রান করলেও দুটি ওয়ানডেতে ব্যর্থ হওয়ার পর আর জাতীয় দলের হয়ে বিবেচিত হন তিনি। অথচ অসাধারণ একজন প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ছিলেন তিনি।

আজকের এই দিনে পরিবার পরিজন নিয়ে যেখানেই থাকুন, ভালো থাকুন সব সময়, এই কামনা।

জুবায়ের আহমেদ
ক্রীড়া লেখক