করোনার পর আন্তর্জাতিক উইন্ডিজদের বিপক্ষে ক্রিকেটে ফিরেছে টাইগাররা। প্রতিপক্ষ যেমন-ই হোক, তাদের উড়িয়ে দেওয়ার আনন্দ থাকে সব সময়। এবারো তার বিপরীত নয়, তামিম ইকবালের হৃদয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৩-০ ব্যবধানে হারানোর সুখস্মৃতি সব সময় থাকবে তরতাজা। দীর্ঘ ১১ বছর পর আবারো হোয়াটওয়াশ করতে পারার তৃপ্তিই আলাদা।

কিন্তু সঙ্গে থাকবে একটু আক্ষেপও। প্রথম দুই ম্যাচে দলকে জিতিয়ে অপরাজিত হিসেবে মাঠ ছাড়ার সুযোগ ছিল তার। সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি। গতকাল অনেকক্ষণ ব্যাটিং করতে পারলে সেঞ্চুরি পেতে পারতেন অনায়সেই। বা দলের যে কেউ করতে পারলেও খুশি হতেন।

গতকাল ম্যাচ শেষে আলাপকালে তামিম বলেন, “আমাদের জন্য চমৎকার সময় ছিল। পুরো দলই যে পারফর্ম করার ক্ষুধা দেখিয়েছে তা দারুণ ছিল। ১০ মাস পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে দলের সবাই যেভাবে খেলেছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। গত ৮-৯ মাসে আমরা অনেক পরিশ্রম করেছিলাম। আমরা দুইটা ঘরোয়া টুর্নামেন্ট খেলেছি, একটা ৫০ ওভার ও আরেকটা ২০ ওভারের। এটা আমাদের সাহায্য করেছে।”

আমি বলবো এই সিরিজের পারফরম্যান্সে আমি ৮৫ শতাংশ খুশি। এখনো অনেক জায়গা আছে, যেখানে আমাদের উন্নতি করতে হবে। আমাদের ব্যাটিংয়ের প্রথম ৫ জনের একজনের থেকে অন্তত একটা সেঞ্চুরি দেখতে চেয়েছিলাম। আজ একটা সুযোগ ছিল, আমার ও সাকিবের। আমাদের যেকোনো একজনের উচিত ছিল সেঞ্চুরি করা।”

তবে করোনাকালীন এই সময়েও টাইগাররা ক্রিকেটে ফিরেছে দারুনভাবে। সামনে নিউজিল্যান্ড সফর,তাই এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখা বেশ প্রয়োজনীয়। টাইগারদের নতুন ক্যাপ্টেন হিসেবে শুরুতেই চমক দেখালেন তামিম ইকবাল।