বাবা মায়ের পাশেই চির নিদ্রায় দিয়েগো ম্যারাডোনা

81

গত বুধবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পৃথিবীকে বিদায় জানিয়ে চলে গেছেন ফুটবল জাদুকর দিয়েগো আরমান্ডো ম্যারাডোনা। আর্জেন্টিনার  ফুটবল ঈশ্বর বেশ কিছু দিন অসুস্থ ছিলেন। ৬০ বছরের ম্যারাডোনা তার নিজ বাস ভবনেই মারা যান। গতমাসে বুয়েনোস এইরেসের একটি হাসপাতালে তার মস্তিষ্কের অস্ত্রোপচার করা হয়েছিলো। মাদকাসক্তিতে ভুগে ছিলেন বেশ কিছু বছর।


গত কাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আর্জেন্টিনার রাজধানীবুয়েনোস এইরেসে বাবা মায়ের পাশেই সমাহিত করা হয় ম্যারাডোনাকে। বুয়েনোস এইরেসে তার শেষকৃত্য পরিবার ও কাছের মানুষের কাছে। এর আগে লাখো ভক্ত তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে প্রেসিডেনসিয়ালে হাজির হয়। সবাই শেষ বারের মত ম্যারাডোনার নিতর দেহটি দেখে কান্না ভেজা চোখ নিয়ে শ্রদ্ধা জানান। লাখো মানুষ তাকে শ্রদ্ধা জানালেও তার শেষ কৃত্যে অংশ নেয় বিশ থেকে পচিশ জন কাছের বন্ধু ও পরিবারের সদস্যরা। ফেইসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রামে চলছে শোকের মাতম। গত বুধবার থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে পরে তার অসংখ্য ছবি। দিয়েগো শুধু আর্জেন্টিনার  বা কোন জাতির সম্পদ ছিলো না। দিয়েগো ছিলো সারা জগতের ফুটবল প্রেমীদের প্রেমী। দিয়েগো ম্যারাডোনাকে গুডবাই বলা যায়; কিন্তু তাকে ফুটবল প্রেমীরা কখনো ভুলে যেতে পারবে না। বিশ্বে যতোদিন ফুটবল থাকবে দিয়েগো ম্যারাডোনার নাম ততোদিন উচ্চস্বরে উচ্চারিত হবে।