কে এম আবু হুরায়রা ; ক্রিকবল নিউজঃ অনূর্ধ্ব – ১৯ এশিয়া কাপের উদ্বোধন কাল হলেও বাংলাদেশের প্রথম খেলা ছিল আজ। প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাত। আর তাদের হেসে খেলেই হারালো বাংলাদেশের যুবারা।

টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং এর সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক আকবর আলী। সিদ্ধান্ত যে খুব একটা ভুল ছিলোনা সেটাই প্রমান করেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব – ১৯ ক্রিকেট দলের বোলাররা।

ব্যাটিং এ নেমে বাংলাদেশের বোলারদের হাতে নাস্তানাবুদ আরব আমিরাতের ব্যাটসম্যানরা। প্রথম পাওয়ার প্লেতেই নেই ৫ টি উইকেট। তবে সেই খাদের কিনারা থেকে উদ্ধার করেন আলিসান সারাফু এবং ওসামা হাসান। ৬ষ্ঠ উইকেট জুটিতে গড়েন ৬৯ রানের গুরুত্বপূর্ণ পার্টনারশিপ।

তবু শেষ রক্ষা হয়নি আরব আমিরাতের। ১০২ রানে আলিসান সারাফু এবং ১২২ রানে ওসামা হাসান আউট হয়ে গেলে আর শেষ রক্ষা হয়নি। দলীয় ১২৭ রানেই সব কটি উইকেট হারায় আমিরাত। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন ওসামা হাসান (৫৭)।

বাংলাদেশ দলের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন তানজিমুল হাসান সাকিব এবং রাকিবুল হাসান। শরিফুল ইসলাম নেন ২ উইকেট এবং মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নেন একটি উইকেট।

জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে হাসে খেলেই জয়ের বন্দরে নোঙর করেন বাংলাদেশ দল৷ ওপেনার তানজিদ হাসান ও পারভেজ হোসাইন ইমনের ৪৬ বলে ৬২ রানের ঝড়ো ওপেনিং জুটিতে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

দলীয় ৬২ রানে ২৭ বলে ৪৫ রানের ঝড় তুলে সঞ্চিত শর্মার বলে কট এন্ড বোল্ড হয়ে ফিরে যান তানজিদ। ৯৫ রানে পারভেজ হোসাইন ইমনও আউট হয়ে যায়। ১১৮ রানে তৌহিদ হৃদয় ও শাহাদাত হোসাইন আউট হয়ে গেলেও মাহমুদুল হাসান জয় অধিনায়ক আকবরকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে মাঠ ছাড়েন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের হয়ে ২টি উইকেট নেন রিশাভ মুখার্জি। ১টি করে উইকেট নেন কার্তিক পালানিয়াপান ও সঞ্চিত শর্মা।

২৭ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পুরস্কার হিসেবে ম্যান অফ দি ম্যাচ নির্বাচিত হন তানজিদ হাসান।