ভিলিয়ার্সের ঝড়ো ফিফটিতে ব্যাঙ্গালুরুর জয়

68

অনেকটা অভিমান করেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অসময়ে অবসর নিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্স। অবশ্য পুনরায় জাতীয় দলে ফেরার কথা থাকলেও টি২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে যাওয়ায় ফেরা হয়নি। জাতীয় দলে দীর্ঘদিন ধরে না খেললেও ঘরোয়া ক্রিকেটে এখনো সেরা পারফর্মার ভিলিয়ার্স। ব্যাট হাতে ঝড় তোলে নিজেদের যথার্থতা প্রমাণ করছেন নিয়মিতই। গতকাল আইপিএলের ২৮তম ম্যাচে কোলকাতার বিপক্ষে মাত্র ৩৩ বলে ৬টি ছয় ও ৫টি চারে ৭৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে দলের ৮২ রানের বড় জয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন ভিলিয়ার্স।

শারজায় টসে িজতে ব্যাট করতে নামে ব্যাঙ্গালুরু। দুই ওপেনার ফিঞ্চ ও পাড়িকাল ৬৭ রানের জুটি গড়েন। ফিঞ্চ ৩৭ বলে ৪৭ ও পাড়িকাল ২৩ বলে ৩২ রান করে ফিরলেও অধিনায়ক কোহলী ও ডি ভিলিয়ার্স ৩য় উইকেটে জুটি বেধে দলকে ১৯৪ রানের বড় সংঘ্রহ এনে দেন। কোহলী ২৮ বলে ১ চারে ৩৩ রান করলেও ডি ভিলিয়ার্স মাত্র ২৩ বলে ফিফটি হাঁকিয়ে শেষে ৩৩ বলে ৬টি ছয় ও ৫ চারে ৭৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন। কোলকাতার হয়ে কৃষ্ণ ও রাসেল ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

১৯৫ রানের বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে কোলকাতা। প্রথমবারের মতো একাদশে সুযোগ পাওয়া ব্যান্টন ১২ বলে ৮ রান করে ফিরেন। গিল একপ্রান্ত আগলে রাখলেও একে একে রানা ৯, মরগ্যান ৮ রান করে ফেরেন। গিল ২৫ বলে ৩৪ রান করে ফেরার পর কার্তিক ১ রান করে ফেরেন। রাসেল ১০ বলে ১৬ ও ত্রিপাতি ২২ বলে ১৬ রান করলেও ৯ উইকেট হারিয়ে ১১২ রানে থামে কোলকাতার ইনিংস। ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে অসাধারণ বোলিং করেন ক্রিস মরিস ও ওয়াসিংটন সুন্দর। দুজনেই ২টি করে উইকেট শিকার করেন। এছাড়াও উদানা, চাহাল, সিরাজ ও শায়ানি ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

দলের ৮২ রানের জয়ে ব্যাট হাতে ৭৩ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হন ডি ভিলিয়ার্স। এটি ব্যাঙ্গালুরুর ৭ম ম্যাচে ৫ম জয়, বিপরীতে কোলকাতার ৭ম ম্যাচে ৩য় পরাজয়।