আইপিএলের চৌদ্দ তম আসরের আঠারো তম ম্যাচে মুখোখুখি হচ্ছে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও রাজস্থান রয়্যালস। দুই দলেই রয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের কাটার মাষ্টার মুস্তাফিজুর রহমান ও অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। আজকের ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট ভক্তদের একটু বাড়তি চাওয়া থাকবে। কিন্তু সবার চাওয়া থাকবে ফিজ ও সাকিবের ভালো পারফরম্যান্স।

চলতি আসরে জয় দিয়ে শুরু করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। হায়দরাবাদের বিপক্ষে ১০ রানের জয় দিয়ে শুভ সূচনা করে শাহরুখ খানের কলকাতা নাইট রাইডার্স। এরপরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গুলুরু, চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে টানা তিন হারে পয়েন্ট টেবিলে সাত নাম্বার স্থানে অবস্থান করছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। চার ম্যাচের তিন ম্যাচের একাদশে সুযোগ পায় সাকিব আল হাসান। কিন্তু সাকিবের বোলিং ও ব্যাটিং আশাহত করছে কলকাতা সমর্থকদের। সাকিব তিন ম্যাচে ব্যাট হাতে করেন ৩৮ রান। তিন ম্যাচে বল হাতে ১০ ওভার বল করে ৮১ রান খরচে ২টি উইকেট সংগ্রহ করেন। শুরু থেকেই কলকাতা নাইট রাইডার্সে সাকিবের বিকল্প উইন্ডিজ তারকা অলরাউন্ডার সুনেল নারিন ছিলো। সাকিব ও নারিনের ওদল বদল হবে বলেই একটা আবাস ছিলো। সাকিব বিহিন চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষেও হারে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কলকাতার আজকের ম্যাচের একাদশেও সাকিবকে না দেখা যেতে পারে।

অপর দিকে ফিজের দলও ভালো অবস্থানে নেই। বেন স্টোকসকে আর পাচ্ছে না রাজস্থান রয়্যালস। আর্চার এখনো একাদশে আসতে পারেনি। তবে চলতি আইপিএলে পাঞ্জাবের বিপক্ষে হার দিয়েই শুরু করে ফিজের রাজস্থান রয়্যালস। চার ম্যাচে একাদশে থেকে মুস্তাফিজুর রহমান ১৫.৩ ওভার বল করে ১৪৫ রান খরচে ৩টি উইকেট সংগ্রহ করেন। যেটা মুস্তাফিজুর রহমানের জন্য ভালো না হলেও রাজস্থান কোচ ফিজের উপর ভরসা রাখেন। দলের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস শূন্যতা ও আর্চারের ইনজুরির কারনেই ফিজ একাদশে নিচ্ছিত বলা যায়।

কলকাতা নাইট রাইডার্স ও রাজস্থান রয়্যালস এর হাই ভোল্টেজ ম্যাচটি মুম্বইয়ের ওয়াংখেড় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় অনুষ্ঠিত হবে।