ঢাকার মাঠের পরিচিত ফুটবলার আব্দুর রাজ্জাক দিলীপ। খেলতেন গোলকিপিং পজিশনে। ঢাকার ফুটবল যখন জনপ্রিয়তার চূড়ান্ত পর্যায়ে, যখন নিয়মিত একাদশে সুযোগ পাওয়া ছিলো স্বপ্নের মতো, তখন তিনি বেশ সুনামের সাথে ঢাকার ফুটবলে বিচরণ করেছেন।

১৯৮৬ সালে চলন্তিকার হয়ে ঢাকার ফুটবলে অভিষেক হয় তার। তারপর থেকে খেলেছেন ওয়ারী, পিডব্লিউডি, ওয়ান্ডারার্স ও শান্তিনগর ক্লাবে। ১৯৯৮ সালে ওয়ারীর হয়ে খেলোয়াড়ী জীবনের ইতি টানেন। এর মাঝে একবার ডাক পেয়েছিলেন কায়েদ এ আজম ট্রফিতে। ভাগ্য অনুকূলে ছিলোনা। তাই খেলা হয়নি। ফুটবল থেকে অবসর গ্রহণ করলেও বিদায় জানাননি ফুটবলকে। তিনি ঢাকা সোনালী অতীত ক্লাবের সদস্য। সোনালী অতীতের হয়ে ইংল্যান্ড, আমেরিকা, ভারত, নেপাল, শ্রীলংকা ভ্রমণ করেছেন তিনি। ওয়ারী ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদকের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের পাশাপাশি ফুটবলের বিভিন্ন আয়োজনে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন।

জনাব রাজ্জাক একজন সফল মুদ্রণ ব্যবসায়ী। ব্যবসা এবং পরিবারের পাশাপাশি ফুটবলকে আজও লালন করছেন হৃদ মন্দিরে। আজীবন থাকতে চান ফুটবলের সঙ্গে। এখনো স্বপ্ন দেখেন বাবলু, আসলাম, মহসীন, আরমানদের মতো তারকার জন্ম হবে বাংলার ঘরে ঘরে। রোমান্টিক ও রুচিশীল এই মানুষটির ঘরনীর নাম সাদিয়া রহমান। এক পুত্র, এক কন্যা নিয়ে তাদের সুখের সংসার। শুভকামনা আজকের দিনে।